খুলনার মশিয়ালীতে গুলিবর্ষণকারী জাফরিন গ্রেফতার Reviewed by Momizat on . নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনার খানজাহান আলী থানাধীন মশিয়ালী  আটরা-গিলাতলা ইস্টার্ণ গেট এলাকায় গোলাগুলির ঘটনার গুলিবর্ষণকারী শেখ জাফরিন হাসানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনার খানজাহান আলী থানাধীন মশিয়ালী  আটরা-গিলাতলা ইস্টার্ণ গেট এলাকায় গোলাগুলির ঘটনার গুলিবর্ষণকারী শেখ জাফরিন হাসানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ Rating: 0
You Are Here: Home » জাতীয় » খুলনার মশিয়ালীতে গুলিবর্ষণকারী জাফরিন গ্রেফতার

খুলনার মশিয়ালীতে গুলিবর্ষণকারী জাফরিন গ্রেফতার

নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনার খানজাহান আলী থানাধীন মশিয়ালী  আটরা-গিলাতলা ইস্টার্ণ গেট এলাকায় গোলাগুলির ঘটনার গুলিবর্ষণকারী শেখ জাফরিন হাসানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এনিয়ে এঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার কানাই লাল সরকার জানান, শনিবার বিকেল ৫টার দিকে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার দাতপুর গ্রাম থেকে মহানগর ছাত্রলীগের বহিস্কৃত ছাত্রনেতা শেখ জাফরিনকে আটক করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

এর আগে শুক্রবার জাফরিরেন ভাই গুলিবর্ষণকারী জাকারিয়ার শশুর কোরবান আলী, শ্যালক আরমান ও চাচাতো ভাই জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মুজিবর নামে এক ব্যক্তিকে অস্ত্রসহ খানজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সহ-প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া এবং তার ভাই জাফরিন ও মিল্টন পুলিশের হাতে ধরিয়ে দেয়। এঘটনায় গ্রামের বেশ কয়েকজন জাকারিয়ার বাড়িতে এবিষয়ে জিজ্ঞেস করতে যায়। এসময় জাকারিয়ার সাথে তাদের কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে জাকারিয়া, জাফরিন কবির ও মিল্টন তাদের ওপর গুলিবর্ষণ করে। এ সময় গুলিতে নজরুল ইসলাম, গোলাম রসুল, সাইফুল ইসলাম, শামীম, রবি, সুজন, রানা ও খলিলসহ ৮-১০ জন গুলিবিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধদের উদ্ধার করে ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নজরুল ইসলাম ও গোলাম রসুলকে মৃত ঘোষণা করেন। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত পৌনে ১টার দিকে সাইফুল ইসলাম মারা যায়। এ ঘটনার পর রাত ২টার দিকে ক্ষুব্ধ অপরপক্ষের গণপিটুনিতে আওয়ামীলীগ নেতা জাকারিয়ার সহযোগী জাহিদ শেখ মারা যায়।

About The Author

Number of Entries : 3052

Leave a Comment

Scroll to top