সাংবাদিক জলিলের মুক্তির দাবিতে খুলনায় মানববন্ধন Reviewed by Momizat on . নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনার সাংবাদিক আব্দুল জলিলের মুক্তির দাবিতে আজ সোমবার দুদপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা। খুলনায় কর্ম নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনার সাংবাদিক আব্দুল জলিলের মুক্তির দাবিতে আজ সোমবার দুদপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা। খুলনায় কর্ম Rating: 0
You Are Here: Home » আঞ্চলিক » সাংবাদিক জলিলের মুক্তির দাবিতে খুলনায় মানববন্ধন

সাংবাদিক জলিলের মুক্তির দাবিতে খুলনায় মানববন্ধন

নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনার সাংবাদিক আব্দুল জলিলের মুক্তির দাবিতে আজ সোমবার দুদপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন করেন সাংবাদিকরা। খুলনায় কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন প্রবীণ সাংবাদিক ও খুলনা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী মোতাহার রহমান বাবু। মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন কৌশিক দে বাপী ও হাসান হিমালয়।

বক্তারা বলেন, সোর্সের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় খুলনা প্রেসক্লাবের সহকারী সম্পাদক আব্দুল জলিলকে ফেনসিডিল দিয়ে ফাঁসিয়ে রোববার (০৭ জুলাই) মুসলমানপাড়ার বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সদর থানায় মাদকদ্রব্য আইনে মামলা করা হয়েছে। জলিলের ঘরের পাশের ড্রেনে ১০ বোতল ফেনসিডিল নিজেরা ফেলে রেখে জলিলকে আটক করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কিছু কর্মকর্তারা। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অসাধু সোর্স ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় সম্পূর্ণ পূর্বপরিকল্পিতভাবে সৎ, পেশাদার ও কর্মনিষ্ঠ সাংবাদিক জলিলের বাড়িতে অভিযান চালায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সদস্যরা। তারা শার্টার ভেঙে ও দেয়াল টপকে বাড়িতে ঢুকে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করে। একপর্যায়ে সাংবাদিক জলিলের বাড়ির পাশে ড্রেন থেকে ১০ বোতলপরিত্যক্ত ফেনসিডিল উদ্ধার দেখিয়ে তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

বক্তারা আরও বলেন, কয়েক দিন আগে ওই এলাকার এক মাদক ব্যবসায়ীকে নিয়ে খুলনা থেকে প্রকাশিত দৈনিক খুলনাঞ্চলে প্রতিবেদন করেন আব্দুল জলিল। এরপর থেকেই তার ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন ওই ব্যবসায়ী। শুধু তাই নয়, এলাকায় মাদকের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামানকে বিষয়টি জানান জলিল। এসব কারণেই হয়তো তাকে ফেনসিডিল দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মানববন্ধনে বক্তারা অবিলম্বে আব্দুল জলিলের নিঃশর্ত মুক্তি ও তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। অন্যথায় সাংবাদিকরা কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তারা। একই সঙ্গে বক্তারা খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের সব সংবাদ বর্জনের ঘোষণা দেন।

এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য করেন- খুলনা প্রেসকাবের সহ-সভাপতি রাশিদুল ইসলাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য হাসান আহমেদ মোল্যা, সাংবাদিক নেতা আবু হেনা মোস্তফা জামাল পপলু, এএইচএম শামিমুজ্জামান, এইচএম আলাউদ্দিন, খুলনা প্রেসক্লাবের সহকারী সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মুন্না, খুলনা রিপোর্টারস্ ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নুরুজ্জামান, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাহী কমিটির সদস্য বিমল সাহা, খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সোহাগ দেওয়ান ও রকিবুল ইসলাম মতি।

মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন- খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল হাসান রুবা, নির্বাহী কমিটির সদস্য মেহেদী হাসান, অ্যাডভোকেট ড. মো. জাকির হোসেন, বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার খুলনার সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট মোমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন খুলনা প্রেসকাবের সভাপতি এসএম হাবিব, কোষাধ্যক্ষ রফিউল আলম টুটুল,  খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের (কেইউজে) সাবেক সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম কাজল, সাংবাদিক আবু তৈয়ব, বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়শন খুলনার সভাপতি বাপ্পী খান, সাংবাদিক মাসুদুর রহমান রানা, এনামুল হক, শামসুজ্জামান শাহীন, মাকসুদ আলী, খুলনা প্রেসকাবের সাবেক কোষাধ্যক্ষ হেদায়েত হোসেন মোল্যা, সাংবাদিক শেখ আল এহসান, উত্তম কুমার, কাজী শামীম আহমেদ, আলমগীর হান্নান, আহমদ মুসা রঞ্জু, আশরাফুল ইসলাম নূর, আব্দুল্লাহ্ আল মামুন রুবেল, মোহাম্মদ মিলন, হারুনুর রশিদ, মাসুম বিল্লাহ্, আসাফুর রহমান কাজল, মেহেদী হাসান, নাজমুল হাসান ও ফটোসাংবাদিক কাজী শান্ত প্রমুখ।

About The Author

Number of Entries : 2844

Leave a Comment

Scroll to top