খুলনায় কলেজ ছাত্র শেখ বদরুদ্দৌজা হত্যা মামলায় আদালত ১০ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ Reviewed by Momizat on . নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনায় কলেজ ছাত্র শেখ বদরুদ্দৌজা হত্যা মামলায় আদালত ১০ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনায় কলেজ ছাত্র শেখ বদরুদ্দৌজা হত্যা মামলায় আদালত ১০ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে Rating: 0
You Are Here: Home » আঞ্চলিক » খুলনায় কলেজ ছাত্র শেখ বদরুদ্দৌজা হত্যা মামলায় আদালত ১০ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ

খুলনায় কলেজ ছাত্র শেখ বদরুদ্দৌজা হত্যা মামলায় আদালত ১০ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ

নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: খুলনায় কলেজ ছাত্র শেখ বদরুদ্দৌজা হত্যা মামলায় আদালত ১০ জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনা বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এমএ রব হাওলাদার এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায়ে আসামি সুলতান আহমেদ ও আব্বাসুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদেরকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়।
যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- নবির হোসেন, তবিবুর রহমান, আকা মিয়া শেখ, খাঁজা মিয়া, বুলু মিয়া, অসিকার শেখ, চাঁন মিয়া শেখ, মনির শেখ, এহিয়া ও কামাল শেখ। আসামিদের সবার বাড়ি জেলার তেরখাদা উপজেলার কুমিরডাঙ্গা গ্রামের পূর্বপাড়ায়।
আদালত সূত্র জানায়, ২০০৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর তেরখাদা উপজেলার কুমিরডাঙ্গা গ্রামের পূর্বপাড়ায় জোহরের নামাজের সময় ছোট ছেলে-মেয়েদের হট্টগোলে মসজিদের মুসল্লিদের নামাজে বিঘ্ন ঘটানোর প্রতিবাদ করায় আসামিরা শেখ বদরুদ্দৌজাকে পিটিয়ে হত্যা করে।
বদরুদ্দৌজা তেরখাদা বঙ্গবন্ধু কলেজের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন। এ ঘটনায় তেরখাদা থানায় নিহতের ভাই শেখ আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে ১২ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। তেরখাদা থানার উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান এ ঘটনায় আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন দেয়। মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের পর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করা হয়।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শাকেরিন সুলতানা জানান, এই হত্যা মামলার পাল্টা হিসেবে বাদী শেখ আসাদুজ্জামানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আসামিরা পাল্টা আরেকটি মামলা করেন।
বিশেষ দায়রা জজ আদালতে মামলা নম্বর- সিআর ১৩০/২০০৯। তদন্তে ওই অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় একই সঙ্গে বিচারক পাল্টা মামলার রায়ে অভিযুক্ত সবাইকে খালাস দিয়েছে।

About The Author

Number of Entries : 2673

Leave a Comment

Scroll to top