ডুমুরিয়ায় ইউপি চেযারম্যানকে গুলি করে হত্যা Reviewed by Momizat on . খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার ধামালিয়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: শহিদুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্ত্বরা। শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে টোলনাস্ খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার ধামালিয়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: শহিদুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্ত্বরা। শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে টোলনাস্ Rating: 0
You Are Here: Home » আঞ্চলিক » ডুমুরিয়ায় ইউপি চেযারম্যানকে গুলি করে হত্যা

ডুমুরিয়ায় ইউপি চেযারম্যানকে গুলি করে হত্যা

খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার ধামালিয়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: শহিদুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্ত্বরা। শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে টোলনাস্থ তার নিজ বাড়িতে তাকে গুলি করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান। অপর দিকে শহিদুল ইসলামের এক হত্যাকারি সোহানকে এলাকাবাসী ধরে পুলিশে দিলে ক্রসফায়ারে সে মারা যায়।ঘটনার সময়ে দুই পুলিশ সদস্য আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও বোমা উদ্ধার করেছে।এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাত পৌনে ১২টার দিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম (৪৪)  বাইরে থেকে বাড়িতে আসেন। এ সময়ে কতিপয় ব্যক্তি তার সাথে কথা আছে বলে ঘরের বাইরে আসতে বলে। তিনি ঘরের বাইরে আসলে খুব কাছে থেকে তার শরীরে গুলি করে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। তার চিৎকার ও গুলির শব্দে প্রতিবেশিরা ছুটে আসেন। তারা সোহান নামে এক অস্ত্রধারীকে ধরে ফেলে। তাকে রঘুনাথপুর ক্যাম্প পুলিশে দেয়া হয়।ডুমুরিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ মোহাম্মদ আওলাদ হোসেন জানান, হত্যাকারি সোহান পুলিশের নিকট স্বীকার করে তার অন্য সহযোগিরা শাহপুর নাপিতের মাঠের পাশে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে  অবস্থান করছে। তার কথামত পুলিশ নাপিতের মাঠে অভিযান চালায় । পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা গুলি করে। এ সময়ে সোহান পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এলোপাতাড়ি গুলির মধ্যে পড়ে সোহান গুরুতর আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে পুলিশ ডুমুরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। সোহান ফুলতলা উপজেলার ডাউকোনা গ্রামের দাউদ শেখের ছেলে। এ সময়ে পুলিশের দুই সদস্য আল মামুন ও ইসরাফিল আহত হন। তারা খুলনা জেলা পুলিশ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, ২টি দেশীয় সার্টারগান কয়েক রাউন্ড গুলি, গুলির খোসা ১০টি ও ৪টি হাত বোমা উদ্ধার করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। হত্যাকান্ডের ঘটনায় কেউ গ্রেফতার নেই।প্রসঙ্গত: ধামালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা মোল্লা আবু জাফর সাময়িক বহিস্কার হলে শহিদুল ইসলাম ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি আওয়ামী লীগের ধামালিয়া ইউনিয়ন শাখার নেতা। বর্তমানে জাফর আত্মগোপনে রয়েছেন।

About The Author

Number of Entries : 76

Leave a Comment

Scroll to top