ক্ষুধার সময় খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর! Reviewed by Momizat on . নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: ক্ষুধা লাগলে খাওয়া আমাদের সাধারন কাজকর্মের মধ্যে পরে। আমরা অনেকেই ক্ষুধা না লাগা পর্যন্ত বসে থাকি। আবার অনেককে দেখা যায় কাজের ব্যস্ততায় ক্ষুধ নিউজবাংলা২৪ডটনেট:: ক্ষুধা লাগলে খাওয়া আমাদের সাধারন কাজকর্মের মধ্যে পরে। আমরা অনেকেই ক্ষুধা না লাগা পর্যন্ত বসে থাকি। আবার অনেককে দেখা যায় কাজের ব্যস্ততায় ক্ষুধ Rating: 0
You Are Here: Home » স্বাস্হ্য » ক্ষুধার সময় খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর!

ক্ষুধার সময় খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর!

first_food_bdনিউজবাংলা২৪ডটনেট:: ক্ষুধা লাগলে খাওয়া আমাদের সাধারন কাজকর্মের মধ্যে পরে। আমরা অনেকেই ক্ষুধা না লাগা পর্যন্ত বসে থাকি। আবার অনেককে দেখা যায় কাজের ব্যস্ততায় ক্ষুধা লাগলেও না খেয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু আপনি জানেন কি, ক্ষুধার সময় খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশী ক্ষতিকর? ব্যস্ততায় কিংবা আলসেমি করে অথবা ডায়েট করার জন্য অনেকেই খাবার দেরি করে খেয়ে থাকেন। অনেকে আছেন প্রচণ্ড পরিমাণ ক্ষুধা না লাগলে খেতে যান না। এই সবই স্বাস্থ্যের জন্য হানিকারক। দুই বেলা খাবারের মধ্যে অনেকটা সময় ব্যয় করলে অনেক বেশী পরিমাণ ক্ষুধা লাগে। পেট খালি হয়। তখন শরীরের কর্মক্ষমতা ধীরে ধীরে কমতে থাকে। ব্রেইনের ওপর চাপ পরে। খাদ্যনালী নুইয়ে আসে। এরপর বেশী পরিমানে ক্ষুধা লাগার পর খেতে গেলে হুট করে আমাদের দেহের নার্ভ সিস্টেম ও খাদ্যনালী তা নিতে পারে না। ফলে দেহের মধ্যেই প্রতিক্রিয়ার শুরু হয়। রোগের সৃষ্টি হয়। আপাত দৃষ্টিতে তেমন কিছু মনে না হলেও এর সুদূরপ্রসারী ফলাফল বেশ খারাপ। এছাড়াও প্রচণ্ড ক্ষুধায় খেতে গেলে সাধারনের থেকে বেশী খাওয়া হয়। ফলে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

সুতরাং ক্ষুধা লাগলে খেতে যাওয়ার অভ্যাস বদলে ফেলুন। প্রতি বেলার খাবারের সময় নির্ধারণ করে রাখুন। বুঝে নিন কখন আপনার দেহে খাবারের প্রয়োজন পরে। খাবার ঠিক কতক্ষণ পর ক্ষুধা লাগে। এরপর ক্ষুধা লাগার আগে আগেই খেতে চলে যান। শরীর থাকবে প্রাণবন্ত এবং দেহ থাকবে সুস্থ।

About The Author

Number of Entries : 2472

Leave a Comment

Scroll to top